এবার আইফোন কিনতে নিজের একটা বিচি বিক্রি যুবকের, দেখুন

আইফোন কিনতে নিজের কিডনী বা অন্যান্য অঙ্গ বিক্রির খবর বহু শোনা গেছে, কিন্তু নিজের অন্ডোকোষ বিক্রির ঘটনা এই প্রথম । শুনতে অবাক লাগতে পারে ব্যপারটা, তবে এমন ঘটনা সত্যিই ঘটেছে। আসুন জেনে নেইয়া যাক।

ঘটনার সূত্রপাত পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের লাহোরের একটি গ্রাম তামান্ডিতে। তামান্ডির যুবক পেশায় সাইকেল মিস্ত্রি আব্দুল। ভালো টায়ার টিউব সারাইয়ের দক্ষতার জন্য তাকে “রিসাইকেল আব্দুল” বলে ডাকে স্থানীয়রা। ঘটনাটি ঘটে গত ফেব্রুয়ারীতে, বন্ধুদের সাথে বাজি ধরে। উল্লেখ্য যে সাইকেল সারাই করে আইফোন কেনার ইচ্ছে ছিলো তার, কিন্তু কোনো মতেই তা পেরে উঠছিলো না, স্থানীয় চায়ের দোকানে বসা কিছু লোক তার এই অপারগতা নিয়ে টোন টিটকিরি করে। আর তাতেই এমন ঘটনা।

আব্দুল তার বন্ধুর কাছে টাকা চায় ধার হিসেবে, বলে দিয়ে দেবে। বন্ধুটিও তার এই পাগলামিকে ব্যঙ্গ করে বলে “তুই তোর একটা বিচি আমার কাছে কেটে বিক্রি করে দে, আমি টাকা দিচ্ছি” কথাটি আব্দুলের আত্মসম্মানে লাগে এবং তৎক্ষণাৎ সে নিজের হাতে থাকা ছুরি নিয়ে নিজের অন্ডোকোষে কোপ বসায়।

আব্দুলের এহেন কান্ডকারখানায় গুরুতর অবস্থায় তাকে দ্রুত হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয়, সেখানে চিকিৎসার পর আব্দুল সুস্থ করা গেলেও একটা অন্ডোকোষ কেটে বাদ দিতে হয়। বন্ধুতের দাম দিতে আব্দুলের বন্ধু তাকে একটি আইফোন গিফট করে পরে। অন্ডোকোষ যায় যাক, আইফোনে খুশি আব্দুল।

কিন্তু কথা হলো একটা বিচি নিয়ে কি মানুষ বেঁচে থাকতে পারে? বা কি হতে পারে? আসুন জেনে নিই আনডিসেন্ডেন্স টেস্টিস সম্পর্কে।

পরিণত বয়সের অনেক পুরুষকেই ডাক্তারের কাছে আসতে দেখা যায় তার অন্ডথলিতে (Scrotum)শুধুমাত্র একটি শুক্রাশয় বা Testis থাকার কারনে। অন্য শুক্রাশয়টির অনুপস্থিতি কিন্ত তার জন্মলগ্ন থেকেই। এর একটি প্রধান কারন আনডিসেন্ডেড টেস্টিস বা অন্ডথলিতে শুক্রাশয় না নামা।

তাহলে ঐ শুক্রাশয় টি কোথায় থাকে?আসলে মাতৃগর্ভে ছেলে শিশু জন্মের সময় তার শুক্রাশয় গুলো থাকে পেটের ভেতরে, শিশুর জন্মের আগেই অবশ্য তা অন্ডথলিতে পৌছে যায়। তবে শতকরা প্রায় ৪ (চার) জন শিশু জন্ম গ্রহনের সময় অন্ডকোষে কেবল একটি শুক্রাশয় নিয়েই জন্মায়। এই চার জনের মধ্যে ২ জন শিশুই ১ মাসের মধ্যে অন্ডথলিতে তার অপর শুক্রাশয়টি ফেরত পায়।

Leave a Comment