ছোটো নুনুওলা ছেলেদের জন্য মাসিক ভাতা দেবে সরকার, ঠিক কত ছোটো? জানুন

নুনু কান্দিস না চুপচুপ, বেলুন কিনে দেব; আর একটু বড়ো হলে বিয়ে দিয়ে দেবো; করিস পক পক। হ্যা এখন নুনুর বড়ো হতে লাগবে না; এমনিই করতে পারবে পক পক। নুনু ছোটো হলে এখন সেটা দুঃখের কারণ নয়; এখন মিলবে মোটা অংকের নুনুভাতা। এমনই চালু করেছে সেই দেশের সরকার। আসুন জেনে নিন বিস্তারিত।

আফ্রিকার একটি ছোট্ট দেশ স্বাধীন জিবুতি। জিনগত কারোনেই আফ্রিকানদের নুনুর সাইজ একটু বেশিই হয় সেটা সবারই জানা; সে দেশের গড় নুনুর সাইজ ৭ ইঞ্চি, তবে এর উপর নীচে অনেক হয় আমরা দেখেছি। সাধারণভাবে ছোটো নুনুর ছেলেদের সেখানে একটু খারাপ চোখে দেখা হয়।

ছোট্টো দেশ জিবুতি সরকার ফিজিক্যাল এডুকেশনের শিক্ষার আড়ালে ছোটো নুনুর অধিকারী ছেলেদের বিশেষ ভাতা দিচ্ছে। এক্ষেত্রে সেদেশের পরিবার মন্ত্রক জানাচ্ছেন ভাতা গ্রহণকারীর নাম, ঠিকানা গোপণ রাখা হবে। নির্দিষ্ট বুথে হেলথ টেস্ট করিয়ে যাদের নুনু ছোটো তাদের বিশেষ ভাতা দেয়া হবে। কিছু কিছু জায়গায় আবার নুনু বড়ো করার তেল দেয়া হছে।

ভাতাপ্রার্থী উসমান জানাচ্ছে, তার নুনুর সাইজ মাত্র ৬ ইঞ্চি, যা সাধারণের তুলনায় অনেক ছোটো, ইন্ডিয়ানদের নজরে এটা বড়ো যদিও। তো ওসমান ভাতা পাচ্ছে গত ৩ মাস ধরে মাসে ৫০০০ জিবুতিয়ান ফ্রাংক, যা ভারতীয় মুদ্রায় ২০০০ টাকার সমান। এতে তার দুঃখের সংসার ভালোভাবেই কাটছে; সে ছোটো নুনু সাথে টাকা পেয়ে খুশি।

এই পরিকল্পনায় খুশি হয়ে আরও কিছু আফ্রিকান দেশ এই সিন্ধান্তের পথে আসতে চলেছে, তাদের ধারনা এতে ছোটো নুনু ছেলেদের মন ভালো থাকবে, তারা দুঃখে ভেঙে পড়বে না, সুখে শান্তিতে থাকবে। কিন্তু আফ্রিকা তো খুশি, কিন্তু তোমার ফ্রেন্ডলিস্টের ছোটো নুনুওলা বন্ধুটার কি হবে? তার জন্য কি এটা দরকারী? জানাও কমেন্টে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *