ভাতে চুল পড়ায় স্ত্রীর নাইটি পরা বন্ধ করলেন ক্ষুব্ধ স্বামী, স্ত্রী করলেন আদালতে মামলা

চুল থাকলে চুল উঠবে এমনটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। তবে অস্বাভাবিক তো তখন যখন সেই চুল পড়া বন্ধ করতে এমন কাজ। হ্যাঁ এমনই কাজ করলেন গোয়ালিয়রের বাসিন্দা বালনীতিন কুমার। অন্যান্য দিনের মতই খাবার তৈরি করেছিলেন বালনীতিনের স্ত্রী জয়া। তবে খাবারে মেলে চুল।

কাজের শেষে সন্ধ্যে বেলা বাড়ি ফিরে খাবার খেতে বসেন বালবাবু। সারাদিনের পরিশ্রমের শেষে খেতে বসে হঠাত খাবারে মেলে কোকড়া একটা চুল। চুলের দৈর্ঘ্য দেখে হঠাত ক্ষেপে জান নীতিন কুমার। খানিকক্ষণ পর্যবেক্ষণ করার পর তিনি হঠাৎ চিৎকার করে ওঠেন-

চুল পড়ার সেই ভিডিওটি দেখুন এখানেঃ

“তোমাকে কতবার বলেছি চুল কেটে ফেলবে, আজ ভাতে পরলো কাল রুটিতে পড়বে, পরশু আমার মুখে; আজ থেকে নাইটি পড়া বন্ধ” এই নিয়ে বচসা তৈরি হয় স্বামী স্ত্রী’র। এক পর্যায়ে মারপিট। পাড়ার লোক এগিয়ে এসে বিবাদ মেটানো হলেও সেই সন্ধ্যেতেই বাপের বাড়ি চলে যান স্ত্রী।

এক চুলের জেরে ডিভোর্সের মুখোমুখি তাঁদের দাম্পত্য; স্ত্রী জয়া মামলা করার হুমকি দেন। তিনি বলেন, ওসব করতে পারে কিন্তু আমার নাইটি পরা বন্ধ করার কে? ওকে আমি পুলিশে দেবো। ঘটনাটি গোয়ালিয়রের তবে এর সত্যাসত্য যাচাই করেনি আমাদের পোর্টাল। মাঝেমাঝে নিছক মজা করার উদ্দেশ্যেও আমাদের লেখা হয়।

আরও দেখুনঃ

Leave a Comment