বিয়ে করতে এসে কনের বাড়িতেই ২২ দিন ধরে লকডাউন বরযাত্রী, মেয়ের বাবার মাথায় হাত

২১ তারিখ বিয়ে করতে এসে ২২ দিন ধরে কনের বাড়িতেই আটকে বর সহ ১৫ জন বরযাত্রী। ঘটনা উত্তর প্রদেশের আলিগড়ের। ছেলে বিজয় মাহাতোর বিয়ের জন্য ২১ তারিখ বরযাত্রী নিয়ে আলিগড়ে এসেছিলেন রামনাথ মাহাতো। কথা ছিল বিয়ে সেরে ২৩ তারিখই ঝাড়খণ্ড ফিরবেন। মাঝে ২২ তারিখ ‘জনতা কার্ফু’ হওয়ার কারণে সমস্ত পরিকল্পনাই পণ্ড হয়ে যায়। এরপর টানা ২১ দিনের লকডাউনের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তারপর আর কী, কনে বাড়িতেই চলছে নাওয়া -খাওয়া।

এদিকে বরযাত্রীদের অন্ন জোগাড় করতে গিয়ে নাভিশ্বাস উঠেছে কনের বাবা নরপত রাইয়ের। উপায় না পেয়ে তিনি দ্বারস্থ হয়েছিলেন জেলা প্রশাসনের। পুলিশ হাত তুলে নেওয়ায় আরও বিপাকে তিনি।

সংবাদসংস্থাকে তিনি জানিয়েছেন, “জেলাশাসক বরযাত্রীকে ফেরত যাওয়ার অনুমতি দেননি। তবে তারা দুপুরের খাবারের বন্দোবস্ত করেছে। কিন্তু সকালের খাবার ও রাতের খাবারের আয়োজন করতে হচ্ছে আমাকেই। ২২ দিন ধরে ১৫ জন মানুষের ২ বেলা করে খাওয়ার জোগাড় করতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছি, টাকাও শেষ হয়ে যাচ্ছে।”

বর অবশ্য বলছেন, “এটি একেবারেই অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতি। আমরা সমস্যার কথা বুঝতে পারছি, কিন্তু আমাদের কিছু করারও নেই।” বরযাত্রীর একজন আবার ঠাট্টা করে বলছেন, “কনে বাড়িতে সবথেকে বেশিদিন বরযাত্রীর থাকার রেকর্ড করেছি। গিনেস বুক অব রেকর্ডে আমরা সহজেই নাম তুলতে পারব।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *